সৃষ্টির প্রথম মান-মানবী আদম ও হাওয়া (আ.)এর করুণ কাহিনী!


একদা হযরত হাওয়া (আ.) একা একা জান্নাতে ঘুরাঘুরি করছেন। এমন সময় তিনি একটি কাঁন্নার আওয়াজ শুনে থমকে দাঁড়ালেন। হাওয়া (আ.) দারুণ বিস্মিত হলেন।

জান্নাতে তো কোনো মানুষের পদচারণা নেই। তাহলে কান্নার আওয়াজ কোথা হতে আসছে। একটু এগিয়ে দেখতে পেলেন একজন বয়োজ্যেষ্ঠ ফেরেশতা কাঁদছে। আসলে ফেরেশতা ছিলেন না সে ছিল শয়তান।

ফেরেশতারূপী শয়তান হাওয়াকে দেখে বলতে লাগলেন-‘আপনার জন্য আমার দুঃখ হচ্ছে। তাই কাঁদছি।’ হাওয়া (আ.) কারণ জানতে চাইলে শয়তান একটি ফলের গাছের দিকে ইশারা করে বললো-এ গাছের ফল যে ভক্ষণ করবে সে কখনো জান্নাত হতে বের হবে না। সে আমরণ জান্নাতে থাকতে পারবে।

শয়তান নানা কৌশলে মিথ্যা কথা বলে হাওয়া (আ.)কে প্ররোচনা দিতে লাগলো। হাওয়া (আ.) বললেন আমি আমার প্রভুর নির্দেশ কিছুতেই অমান্য করতে পারবো না।

শয়তান আবারো তাকে এ ফলের মিথ্যা গুণাগুণ বলতে শুরু করলো। দুজনের মাঝে কিছুক্ষণ এ নিয়ে বাকবিতর্ক হলো। হাওয়া (আ.) বলেন খাবো না। আর শয়তান বললো আপনার ভালোর জন্যই ফলটি খেতে বলেছি। এভাবে জেরা চলছিলো। দুজনের জেরার একটি সময় এসে হাওয়া (আ.) শয়তানেরর প্ররোচনায় পড়ে গেলেন। হাওয়া (আ.) এ নিষিদ্ধ ফল খেয়ে নিলেন। পরে কৌশলে শয়তান বিবি হাওয়া (আ.)-এর মাধ্যমে আদম (আ.)-এর অজান্তে এ নিষিদ্ধ ফল ভক্ষণ করিয়ে দিলেন।

যার আলোচনা কোরআনে এভাবে বিবৃত হয়েছে। ‘অতঃপর শয়তান তাদের উভয়ের অন্তরে কুমন্ত্রণা প্রদান করলো। যাতে তাদের সতর যা গোপন ছিলো তা তাদের সম্মুখে উন্মোচিত করে দেয়া হলো। আর শয়তান বললো, তোমাদের প্রতিপালক যে তোমাদেরকে এ বৃক্ষ হতে বারণ করেছেন। তা শুধু এজন্য যে, তোমরা যাতে ফেরেশতা হয়ে যাও। কিংবা অনন্ত জীবন লাভ করো।

সে নানারকম শপথ করে বললো, আমি তোমাদের হিতাকাক্সক্ষী হয়ে ভালো উপদেশ দিচ্ছি। অতঃপর সে তাদেরকে ধোঁকায় নিপতিত করলো। যখন তারা নিষিদ্ধ গাছের ফল ভক্ষণ করে নিলো। তখন তাদের গুপ্তাঙ্গ প্রকাশিত হয়ে পড়লো। অতঃপর তারা লজ্জিত হয়ে জান্নাতের পাতা দিয়ে তাদের লজ্জাস্থান ঢাকতে লাগলেন।

এরপর তাদের প্রতিপালক তাদেরকে ডেকে বললেন, আমি কি তোমাদেরকে এই বৃক্ষ হতে বারণ করিনি? আর আমি কি বলিনি যে শয়তান তোমাদের প্রকাশ্য শত্রু।’ (সূরা আরাফ : ২০,২১) যখন তারা নিষিদ্ধ ফল খেয়ে নিলেন তখন আল্লাহ তায়ালা হাওয়া (আ.) ও আদম (আ.)কে পৃথিবীতে পাঠিয়ে দিলেন।

বললেন এ মুহূর্তে তোমরা জান্নাতে থাকার যোগ্যতা হারিয়ে ফেলেছো। সুতরাং তোমরা পৃথিবী হতে কষ্ট সাধনা করে আমার সন্তুষ্টি অর্জনের মাধ্যমে পুনরায় জান্নাতে ফিরে আসবে। এ সময় মা হাওয়া (আ.) দুনিয়ার পশ্চিম গোলার্ধে জেদ্দা শহরে অবতরণ করলেন। আর আদম (আ.) পূর্ব গোলার্ধে শ্রীলংকার সন্দীপে।

তারপর কয়েক শত বছর পর তারা একত্রিত হয়েছিলেন। এরপর তারা উভয়ে দুনিয়া আবাদ করতে লাগলেন। আল্লাহর নির্দেশে সপ্তম আকাশে অবস্থিত বায়তুল মামুরের নীচে মক্কায় বাইতুল্লাহ শরীফ নির্মাণ করলেন। পৃথিবীতে তাদের মাধ্যমে মানব জন্মের সূচনা করলেন।

হযরত আদম (আ.)-এর ঔরসে মা হাওয়া (আ.)-এর গর্ভে মোট ২৩৯ জন মতান্তরে ৩৬১ জন সন্তান জন্ম গ্রহণ করে। তন্মধ্যে হযরত শীষ (আ.) ছাড়া বাকি সবাই জোড়া জোড়া জন্ম হয়েছিলেন। আর বিধান ছিলো এক জোড়ার সহোদর ভাই অপর জোড়ার ভগ্নির সাথে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হবে। কিন্তু একই জোড়ার পরস্পর ভাই-বোনদের সাথে বিয়ে নিষিদ্ধ ছিলো।

মা হাওয়া সবসময় আদিপিতা আদম (আ.)-এর সাথে সাথেই থাকতেন। আদমের প্রতি যেসব বিধানাবলী আসতো তা সর্বপ্রথম পালনকারী ছিলেন মা হাওয়া (আ.)। আদম (আ.) আল্লাহর নবী ছিলেন। তাই মা হাওয়া আদম (আ.)কে সেভাবে মেনেছেন যেভাবে স্বামী হিসেবে মেনেছেন। হযরত আদম (আ.)-এর মৃত্যুর এক বছর পর মা হাওয়া ইন্তেকাল করেন। সে হিসেবে মা হাওয়া (আ.) এর বয়স হয়েছিলো ৯৬১ বছর। তবে সঠিক বয়সের ব্যাপারে ঐতিহাসিকগণ বিভিন্ন মতামত ব্যক্ত করে থাকেন।

পোস্টটি শেয়ার করুন

Comments

  1. Flashbeabe

  2. Health and Fitness

  3. Health and Fitness

  4. DavidAbupe

  5. DonaldBreet

  6. Allenthala

  7. OscarDyeda

  8. KennethAmbix

  9. Jamesreuff

  10. BryanCoapy

  11. OscarDyeda

  12. KennethAmbix

  13. Jamesreuff

  14. BryanCoapy

  15. KennethAmbix

  16. OscarDyeda

  17. MerioNBox

  18. BryanCoapy

  19. KennethAmbix

  20. OscarDyeda

  21. MerioNBox

  22. KennethAmbix

  23. KennethAmbix

  24. Jamesreuff

  25. OscarDyeda

  26. BryanCoapy

  27. OscarDyeda

  28. MerioNBox

  29. KennethAmbix

  30. BryanCoapy

  31. OscarDyeda

  32. BryanCoapy

  33. Jamesreuff

  34. MerioNBox

  35. KennethAmbix

  36. Mosesboymn

  37. EdwardNot

  38. EdwardVak

  39. Mosesboymn

  40. StevenSep

  41. EdwardNot

  42. Mosesboymn

  43. StevenSep

  44. HenryYG

  45. MHTommy

  46. EarlBQ

  47. StaceyFralk

  48. Williamdrusa

  49. Timothysip

  50. JerryMes

  51. StaceyFralk

  52. Williamdrusa

  53. Timothysip

  54. JerryMes

  55. BernardscurL

  56. JerryMes

  57. Timothysip

  58. StaceyFralk

  59. JerryMes

  60. BernardscurL

  61. Timothysip

  62. HectorUnife

  63. hardlinux

  64. Jerryset

  65. ScottGiP

  66. Rogergut

  67. Douglasnom

  68. ITWillie

  69. CyrilCar